হাশরের মাঠে একটি নেকী অন্বেষণ

 

হাশরের মাঠ_একটি_নেকী অন্বেষণ
Image Credits: Pexels

হাশরের মাঠে একটি নেকী অন্বেষণ

বর্ণিত আছে যে, হাশরের মাঠে এক ব্যক্তির নেকী ও বদী সমান সমান হবে। আদেশ হবে যদি মুক্তি চাও তবে যে কোন প্রকারেই হোক নেকীর পাল্লা ভারী কর। সুতরাং আর মাত্র একটি নেকীর প্রয়োজন। বেচারা হাশরের মাঠে ঘুরে-ফিরে সমস্ত আত্মীয়-স্বজন ও পরিচিত বন্ধু-বান্ধবের নিকট ধর্ণা দিবে। কিন্তু কেউ তাকে মাত্র একটি নেকীও দিতে স্বীকার করবে না। কেননা সেদিন প্রত্যেকেই নিজ নিজ ব্যাপারে শংকিত থাকবে। সবাই ভাববে যদি আমারও একটি নেকী কম পড়ে যায়? তাই কেউ তাকে উদ্ধারকরার জন্য এগিয়ে আসবে না। অবশেষে এমন এক ব্যক্তির সন্ধান মিলবে যার শুধুমাত্র একটিই নেকী আছে, বাকী সবই গুনাহ। সে বলবে, ভাই! তুমি এত নেকী থাকা সত্ত্বেও মাত্র একটি নেকীর জন্য বেহেশতে যেতে পারছ না আর আমার নিকট শুধু মাত্র একটি নেকী। আর আমার জন্য জাহান্নাম অবধারিত। সুতরাং এটা তুমিই নিয়ে যাও। আমার না হোক অন্ততঃ তোমার একটা কাজ হোক। তখন তার নেকীর পাল্লা ভারী হয়ে যাবে আর নাজাতের ফায়সালা হয়ে যাবে।

এবার নেকীদানকারী ব্যক্তিকে আল্লাহর দরবারে ডাকা হবে এবং প্রশ্ন করা হবে। তুমি স্বীয় নেকী অন্যকে দিলে কেন? এখন তোমার কোন পুণ্যই অবশিষ্ট নাই। সে উত্তরে বলবে, হে পরওয়ারদেগার! আমি দেখলাম এক ব্যক্তির নিকট হাজারো নেকী সত্ত্বেও একটি নেকী কম হওয়ার কারণে জান্নাতে যেতে পারছিল না, আর আমিও বুঝতে পারলাম যে, একটি মাত্র নেকী দ্বারা আমি জান্নাতের আশা করতে পারি না। তাই তাকে আমার নেকীটি দিয়ে দিলাম। যাতে তার অন্ততঃ নাজাত হয়ে যায়।

আল্লাহ পাকের পক্ষ হতে আওয়াজ আসবে যে, তোমাকে মাফ করে দেয়া হলো। তাকে মাফ করা হয়েছে নিয়মমাফিক আর তোমাকে মাফ করা হলো আমার একান্ত রহমত ও অনুগ্রহ দ্বারা। তুমি তার উপর দয়া করেছ তাই আমিও তোমার উপর রহম করলাম।

ফায়দাঃ নেকীর মূল্য কেয়ামতের দিন বুঝা যাবে। হাদীসে আছে যে, মানুষ এক-একটি নেকীর জন্য আটকে যাবে ভীষণতাবে আর মুক্তির কোন
উপায় খুঁজে পাবে না।

সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন এবং (হাশরের মাঠে একটি নেকী অন্বেষণ) এরকম ইসলামিক কাহিনী জানতে Shamimblog এর সাথেই থাকুন ধন্যবাদ।

Add a Comment

Your email address will not be published.