নগদ একাউন্ট খোলার নিওম – সহজ উপায়ে নগদ একাউন্ট খুলুন।

নগদ বাংলাদেশ সরকারের ডাক বিভাগের একটি ডিজিটাল আর্থিক পরিষেবা, যার মাধ্যমে অর্থের লেনদেন সহজেই করা যায়। পরিষেবাটি ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে শুরু হয়। এটি অনেকটা জনপ্রিয় বিকাশ এর মতো। আসুন জেনে নিই কীভাবে আপনি ঘরে নগদ একাউন্ট  খুলতে পারেন।

নগদ একাউন্ট  খোলার নিয়ম

নগদ উদ্যোক্তা বা এজেন্টের কাছে গিয়ে কাগজপত্রের দিয়ে একাউন্ট  খোলার পাশাপাশি আপনি ঘরে বসে নিজের একাউন্ট  খুলতে পারেন।
নগদ একাউন্ট  খুলার নিয়ম নিচে দেওয়া হলো জেনে নিন-

নগদ অ্যাপ থেকে একাউন্ট  খুলা

নগদ একাউন্ট খোলা অনেক সহজ ব্যপার। আপনি বাড়িতে থেকেই নগদ একাউন্ট  খুলতে পারেন। নগদ একাউন্ট  খুলতে প্রথমে

প্লে স্টোর বা অ্যাপ স্টোর থেকে “নগদ অ্যাপ” ডাউনলোড করুন।

২. অ্যাপটি ডাউনলোড করার পরে এটি খুলুন এবং নির্দেশাবলী অনুসরণ করুন।

৩. জাতীয় পরিচয়পত্রের সামনের ও পিছনের ছবি আপলোড করুন।

৪.একটি সেলফি নিন এবং একাউন্ট  যুক্ত করুন।

৫. শর্তাবলী পড়ুন।

৬. আপনার স্বাক্ষর করুন।

এয়ারটেল এবং রবি সিম থেকে একাউন্ট 

যারা এয়ারটেল এবং রবি সিম ব্যবহার করেন তাদের জন্য নগদ একাউন্ট  খোলা অনেক সহজ। রবি এবং এয়ারটেল সিম ব্যবহারকারীরা *167# ডায়াল করে আপনার একাউন্টের পিন কোডটি সেট করে নগদ একাউন্ট  টি সক্রিয় করতে পারবেন।

নগদ একাউন্ট  কেন খুলবেন?

নগদ একাউন্ট  খোলার বিভিন্ন সুবিধা রয়েছে। যেমন –

সুরক্ষা: লেনদেনের ক্ষেত্রে সুরক্ষা সর্বদা সর্বজনীন। নগদ যেহেতু একটি সরকারী সেবা, তাই এটি অন্যান্য লেনদেন সিস্টেমের তুলনায় আরও সুরক্ষিত বলা যেতে পারে।

তুলনামূলকভাবে কম চার্জ: স্বল্প খরচে অনুরূপ ধরনের সেবা যেমন বিকাশ ক্যাশ আউট চার্জ থেকে নগদ ক্যাশ আউট চার্জ কম।

নগদ নতুন ব্যবহারকারীদের একটি একাউন্ট  খোলার মাধ্যমে কোটিপতি হওয়ার সুযোগ রয়েছে নগদ এ।

তাহলে বন্ধুরা আপনার যদি নগদ একাউন্ট  না থাকে দ্রুত খুলে নিন এবং এসকল সুবিধা উপভোগ করুন ধন্যবাদ।

One Comment

Add a Comment

Your email address will not be published.